অভিযোগ

 

ভালোবাসার মানুষটাকে নিয়ে অনেক অভিযোগ তাইনা। আমাকে সময় দেয়না, আমার ঠিকঠাক মতো খেয়াল রাখেনা। যত্ন নেয় না। আমাকে তো ও ভালোইবাসেনা।
ভালোবাসেন। এইজন্যই তো এতো অভিযোগ।
কিন্তু তাই বলে কথায় কথায় উঠতে বসতে অভিযোগ করলেই কিন্তু ভালোবাসা হাসিল করা যায়না। মাঝে মাঝে অতিরিক্ত অভিযোগ বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়।আপনাদের মাঝে দূরত্বের সৃষ্টি হতে পারে। এতো সাধের সম্পর্কটা দেখতে পারে ভাঙনের মুখ।
তাই সবসময় অভিযোগের সুর না টেনে কাছের মানুষটিকে পাশে নিয়ে বসেন,সম্ভব না হলে দূরে থাকলে ফোনটা ধরে শান্ত হয়ে বুঝিয়ে বলেন।আপনার কোথায় সমস্যা হচ্ছে,তার কোন জিনিস্টা খারাপ লাগছে,আপনি কি চাচ্ছেন,আর কি পাচ্ছেন না। এসব কিছু ঠান্ডা মাথায় তাকে বলেন, দেখবেন সে বুজবে। আপনার অভিযোগ করার জায়গা গুলো কমে আসবে।
এর পাশাপাশি আপনার নিজের দিকটাও দেখতে হবে,নিজেকে একট্য সুধরানো যায় কিনা,একটু ছাড় দেয়া যায় কিনা,একটু মানিয়ে নেয়া যায় কিনা, কাছের মানুষটার অপারগতার পিছনের কারণ আছে কিনা,তার কাজ,তার ব্যাস্ততা সবকিছুর সাথে মানিয়ে নিয়েই চলতে হবে।কখনো আপনি মানিয়ে নিবেন কখনোবা অপর পাশের মানুষটি।
এইতো জীবন।জীবনে ভালো থাকতে খুব বেশী কিছুর তো দরকার হয়না।

অভিযোগ করেন। ভালোবেসে করেন। না হলে অভিযোগ করতে করতে পাহাড় হয়ে যাবে। আর সেই পাহাড় অতিক্রম করতে পারবেননা। কাছের মানুষদের দূরে যেতে দিয়েন না।দোষ গুন মিলেই মানুষ। মানিয়ে নিতে পারলেই জীবন সুন্দর।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *